সমালোচনার পর আবার মুখ খুললেন জায়রা

1576

সমালোচনার পর আবার মুখ খুললেন- জাইরা ওয়াসিম সুপারস্টার আমির খানের ‘দঙ্গল’ সিনেমায় অভিনয় করে রাতারাতি তারকা বনে যান। তখন থেকেই তিনি পরিচিতি পান দঙ্গলকন্যা নামেই। হঠাৎই অভিনয় ছাড়ার ঘোষণা দিলেন অষ্টাদশী এ তরুণী। গত রোববার নিজের ফেসবুক পেজে বলিউড ছাড়ার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে বিস্তারিত জানান জাইরা ওয়াসিম।

‘ধর্মীয় কারণ’ দেখিয়ে বলিউড ছাড়ার সিদ্ধান্ত তাঁর। বলেন, ‘ধর্মের সঙ্গে আমার সম্পর্ক হু.. ম.. কি র মুখে।’ জাইরা জানালেন, তাঁর ‘ইমান (আল্লাহর প্রতি আনুগত্য) হু.. ম.. কি র মুখে।’ তাই বলিউডকে বিদায় জানালেন। তার ওই পোস্টের পর বলিউডের রবীনা ট্যান্ডন, সিদ্ধার্থ মালহোত্রাসহ দেশ-বিদেশি অনেক সেলেব্রিটিই এর প্রতিবাদ জানান।

অনেকে এটাও বলেন, জায়রার সোশ্যাল অ্যাকাউন্ট হ্যা.. ক করে ওই পোস্ট করা হয়েছে। এই নিয়ে গত রবিবার থেকেই চলছে জল্পনা। তবে জায়রা আমির খানের হাত ধরেই অভিনয় শুরু করেন। আমির এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেননি। তবে জায়রা কি সত্যিই ওই পোস্ট করেছেন? এই দ্বন্দ্ব কাটালেন জায়রা নিজেই।

তিনি আজ আরও একটা পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি জানান, ‘আমি সবাইকে পরিষ্কার করে জানাতে চাই, যে আমার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যা.. ক করা হয়নি। আমার সব সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট আমি নিজেই হ্যান্ডেল করছি। তাই দয়া করে আমার অ্যাকাউন্ট হ্যা.. কের ভুল খবর ছড়াবেন না। ধন্যবাদ।’ জায়রার এই পোস্টের পর থেকে তার সম্প্রদায়ের অনেক মানুষ তাকে বাহবা জানাতে শুরু করেন। তবে বলিউডের কেউ এই বিষয়টাকে ভাল চোখে দেখছেন না।

সুত্র-বি ডি ২৪ লাইভ।

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন ইস্কনের রথযাত্রায় বিশেষ অতিথির আমন্ত্রণ গ্রহণ করে ফের আলোচনায় এসেছেন। গত কয়েক মাস ধরে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন নুসরাত জাহান। লোকসভা নির্বাচনে ভারতের রাজনীতির মাঠ সরগরম করে আলোচিত ছিলেন নুসরাত।

তার বাকপটুতায় মুখোরিত ছিল পশ্চিমবঙ্গের নানা প্রান্তর। এরপর নির্বাচনে জয়ী হয়ে তৃণমূল সভানেত্রীকে বসিরহাট আসনটি উপহার দেন নুসরাত। আগামী বৃহস্পতিবার ইস্কনের (ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনশাসনেস) রথযাত্রার উদ্বোধনে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত হয়েছেন নুসরাত।

ইস্কনের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ওই অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। গত ২২ জুন জৈন ধর্মের অনুসারী নিখিল জৈনকে বিয়ের পর সিদুর ও মঙ্গলসূত্র পড়ে বিতর্কে জড়ান নুসরাত। মাথায় সিঁধুর দেয়ায় মুসলিমদের ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে। কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠন ইস্কনের আমন্ত্রণ গ্রহণ করায় নুসরাতকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সংগঠনটির মুখপাত্র রাধারমণ দাস।

এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, রথযাত্রার আমন্ত্রণ গ্রহণ করার জন্য ধন্যবাদ নুসরাত। আপনি সত্যিই পথ দেখাচ্ছেন। ১৯৭১ সালে স্থাপিত ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনশাসনেস ইস্কনের এটি ৪৮তম রথযাত্রা। রথযাত্রার উদ্বোধন করবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইস্কনের মুখপাত্র রাধারমণ দাস টুইট করে জানান, ‘রথযাত্রার আমন্ত্রণ গ্রহণ করার জন্য ধন্যবাদ নুসরাত। আপনি সত্যিই পথ দেখাচ্ছেন।’

রাধারমণ দাস বলেন, ‘ইস্কন কলকাতা রথযাত্রা সামাজিক সমন্বয়ের একটি উদাহরণ, যেখানে ঈশ্বরের রথ নির্মাণ করেন আমাদের মুসলিম ভাইরা। ঈশ্বরের পরিধেয় বহু পোশাকও আমাদের মুসলিম ভাইরা বানিয়েছেন এবং এটা তারা করে আসছেন দশকের পর দশক ধরে আমাদের কিছু মন্দিরে।’

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, রথযাত্রার আয়োজনের জন্য অভিনেত্রী নুসরাত ইস্কনকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন। পাশাপাশি রথযাত্রার উদ্বোধনে উপস্থিত থাকার জন্য এবং তাদের সঙ্গে উৎসবে অংশ নেয়ার জন্য শহরবাসীর প্রতি তিনি আহ্বান জানান। সমালোচকদের উদ্দেশে বসিরহাট থেকে নির্বাচিত এই সংসদ সদস্য বলেন, আমি এক জন মুসলিমই থাকব এবং আমি কী পরব তা নিয়ে কারও কথা বলার অধিকার নেই। বিশ্বাস সব কিছুর ঊর্ধ্বে।