পতাকা টাঙাতে গিয়ে হাত-পা হারানো মতিন পেলেন আর্জেন্টিনার ডাক

2062

ঢাকায় আর্জেন্টিনার দূতাবাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেলেন আর্জেন্টাইন পতাকা ওড়াতে গিয়ে হাত ও পা হারানো ফেনীর আবদুল মতিন।

আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো আন্দ্রেস ক্যাফিয়েরো সোমবার রাজধানীর বনানীতে তার দেশের দূতাবাস উদ্বোধন করবেন।

মতিন জানান, তার সঙ্গে ইমেইলে যোগাযোগ করেছে আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়। অনুষ্ঠানে যোগদান করার জন্য এরইমধ্যে ঢাকায় গেছেন তিনি।

মতিনের আর্জেন্টিনা প্রীতির খবর গেলো কাতার বিশ্বকাপ চলাকালীন প্রকাশ হয় দেশের বেশ কয়েকটি জাতীয় গণমাধ্যমে।

এরপর তার বিষয়ে জানতে পারে আর্জেন্টিনার সরকার। তাকে নিয়ে লেখা হয় সেদেশের গণমাধ্যমেও।

ফুটবলপ্রেমী মতিনের বাড়ি ফেনীর দাগনভূঞাঁ উপজেলা সিন্দুরপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামে। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে প্রিয় দল আর্জেন্টিনার পতাকা ওড়াতে গিয়ে চিরতরে হারিয়েছেন নিজের চার হাত-পা।

পরিশ্রমী, কর্মঠ মতিনের ছিল সাজানো গোছানো ব্যবসা। সুস্থ-সুন্দর শারীরিক গঠনাকৃতির মতিনের এখন কিছুই নেই। বেঁচে আছেন আত্মীয় ও প্রতিবেশীদের সাহায্য সহযোগিতায়।

এত কিছুর পরেও কমেনি ফুটবলের প্রতি তার আগ্রহ। গত বছরে অনুষ্ঠিত কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বেজায় খুশি হন মতিন।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালের মার্চ মাসের ২৮ তারিখ। বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা শুরু হওয়ার কয়েকদিন আগের ঘটনা। লক্ষ্মীপুর শহরের আজিম শাহ মার্কেটের তিন তলা ছাদের ওপরে অ্যালমুনিয়াম রডের মাধ্যমে পতাকা টাঙাচ্ছিলাম।

হঠাৎ বিদ্যুতের প্রধান সঞ্চালন লাইনের সঙ্গে লেগে যায় অ্যালমুনিয়ামের রডটি। মূহুর্তেই ছিটকে পড়ি একটি দেয়ালের ওপর। আর হুঁশ ছিল না।

এ ঘটনার পর মতিনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসা দেয়া হয় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের বার্ন ইউনিটে। ক্ষতস্থানে ইনফেকশন হয়ে যাওয়ায় মতিনের হাত-পাগুলো কেটে ফেলতে হয়।