চাঁদা না দেয়ায় আ.লীগ নেতার গু’লি’তে গরু ব্যবসায়ী নি’হ’ত

1203

চাঁদা না পেয়ে ফেনীর সুলতানপুরে শাহজালাল (২৭) নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে গু’লি করে হ”ত্যা”র অ’ভি’যো’গ উঠেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম ও তার ক্যা’ডা’র বাহিনীর বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে সুলতানপুর এলাকার ক্যাডেট কলেজসংলগ্ন আহসান মিয়ার বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। 

নি’হ’ত শাহজালাল কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ থানার সাগুলি গ্রামের আবদুল জব্বারের ছেলে।

অভিযুক্ত আবুল কালাম ফেনী পৌরসভার কাউন্সিলর ও ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

জানা গেছে, খুনের ঘটনার পর ব্যবসায়ীর লা’শ স্থানীয় একটি পুকুরে ডুবিয়ে রাখা হয়। পুলিশ হ”ত্যা”কা”ণ্ডে জড়িত সন্দেহে সাগর নামে একজনকে আটক করেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতি বছরের মতো গরু ব্যবসায়ী শাহজালাল ১৫টি গরু কিশোরগঞ্জ থেকে গাড়ি বোঝাই করে এনে বিক্রির জন্য বাড়ির সামনে রাখে।

একপর্যায়ে তার কাছে চাঁদা দাবি করেন কাউন্সিলর আবুল কালামসহ তার তিন সহযোগী। টাকা না পেয়ে কালামের নেতৃত্বে গরুগুলো ছি’ন’তা’ই’য়ে’র চেষ্টা করে। 

এ সময় শাহজালালের চিৎ’কা’রে তার চাচাতো ভাই আল আমিন ঘর থেকে বের হয়। শাহজালালকে ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করলে আল আমিনকেও মা’র’ধ’র করেন তারা। পরে আল আমিনের স্ত্রী সুমি কালামের হাতে পায়ে ধরে আল আমিনকে ছাড়িয়ে নেন। 

এর পর কাউন্সিলর ও তার সহযোগীরা শাহজালালকে মোটরসাইকেলযোগে তুলে নিয়ে যায়। তাকে গু”লি করে হ”ত্যা”র পর পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে লা”শ ফেলে পালিয়ে যায় তারা। 

ঘটনার খবর পেয়ে লা”শ উদ্ধার করে ম’য়’না’তদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালের ম’র্গে পাঠায় পুলিশ।

জেলা পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবীসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক নিজাম উদ্দিন জানান, ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে কালামের সহযোগী সাগর নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। কাউন্সিলর কালামকে গ্রে’ফ’তা’রে’র জন্য পুলিশ অ”ভি”যা”ন শুরু করেছে।