গোল বাতিল করে বিশ্বকাপের শুরুতেই বিতর্ক

2054

বিতর্ক যেন পিছুই ছাড়ছে না কাতার বিশ্বকাপে। বিশ্বকাপের শুরুতে অভিবাসী কর্মীদের নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়েছিল পুরোটা সময়জুড়ে।

সেটারই যেন কিঞ্চিত লেশ দেখা গেল বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেও।

কাতারের বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ইকুয়েডরের ভ্যালেন্সিয়ার করা গোলটি বাতিল করে দিয়েছে ভিডিওএ এসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভার)।

সাদামাটো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হয় বিশ্বকাপ। শুরুতেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় ইকুয়েডর।

মাঝ মাঠ থেকে ফ্রি কিক থেকে বল পেনাল্টি বক্সের ভেতর গেলে সেখান থেকে টরেসের করা ওভার হিট কিকে বল ভ্যালেন্সিয়ার কাছে গেলে সেখান থেকে হেডে গোল করেন তিনি। কিন্তু সেই উদযাপন বেশিক্ষণ রইল না।

goal

মাঠের রেফারি গোলটি বৈধ কিনা সেটি জানতে ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভার) –এর সহায়তা নেন। সেখানে দেখা গেল অফিসাইডের কারণে গোলটি বাতিল করা হয়েছে।

কিন্তু স্পষ্ট দেখা গিয়েছে বলটি অনসাইড ছিল। কিন্তু ঠিক কি কারণে গোলটি বাতিল করা হয়েছে তা জানা যায়নি। ইতোমধ্যে এই গোল বাতিল নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

মাঠের রেফারি গোলটি বৈধ কিনা সেটি জানতে ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভার) –এর সহায়তা নেন। সেখানে দেখা গেল অফিসাইডের কারণে গোলটি বাতিল করা হয়েছে।

পরে রিপ্লেতে দেখা গিয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সহায়তা গোলটি অফসাইড ছিল। এবারই প্রথম এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে।

স্বাগতিকদের বিপক্ষে গোল করে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম গোলের খাতা খুললেন ইকুয়েডরের ভ্যালেন্সিয়া।

লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্ব খেলে এবারের বিশ্বকাপে সুযোগ করে নেয় ইকুয়েডর।

ম্যাচের প্রথমার্ধের ১৬ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর ভ্যালেন্সিয়াকে ফাউল করে বসেন কাতারি গোলরক্ষক সাদ আল সায়েব। আর তাতেই রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান।