কচি সাজতে বয়স লুকিয়েছেন যেসব নায়িকা

1916

বয়স কম হলে নায়িকাদের ক্রেজ থাকে। ক্রেজ থাকলে তার কদরও থাকে ইন্ডাস্ট্রিতে। এই উপমহাদেশের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে সাধারণত নায়িকারা সামান্য বুড়িয়ে গেলেই লিড চরিত্র থেকে বাদ পড়ে যান।

সেই ভাবনা থেকেই নায়িকারা নিজেদের বয়স কমিয়ে ফেলতে চান। সেজন্য বয়স লুকিয়ে মিথ্যা বলেন।

বলিউডের বেশ ক’জন তারকাও রয়েছেন যারা নিজেদের বয়স লুকিয়ে কম বলার চেষ্টা করেছেন।

সেটা কাজ পাওয়ার জন্য হোক বা অন্য কোনো কারণে, বিষয়টি বেশ মজার। দেখে নেয়া যাক, বলিউডের সেই সব অভিনেত্রীর তালিকাটি-

ক্যাটরিনা কাইফ

বলিউডে তুমুল জনপ্রিয় এক নাম ক্যাটরিনা কাইফ। এই অভিনেত্রী বলিউডের সেরা তিন খানসহ জুটি বেঁধেছেন বিভিন্ন প্রজন্মের অভিনেতাদের সঙ্গে। তার অসংখ্য ছবি বক্স অফিসে বাজিমাত করেছে।

কিন্তু ক্যাটরিনা বয়স লুকিয়েছেন বলে শোনা যায়। একটি সাক্ষাৎকারে নায়িকা দাবি করেছিলেন তিনি রণবীর কাপুরের চেয়ে বয়সে ছোট। কিন্তু হিসেব বলছে, রণবীর ১৯৮২ সালে জন্মেছিলেন। সেই অনুযায়ী তার বয়স ৩৬। ক্যাটরিনার জন্মসাল ১৯৮১, সেই অনুযায়ী ক্যাটের বয়স এখন ৩৭।

কঙ্গনা রানাউত

জনপ্রিয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। তিনিও বয়স লুকিয়েছেন বলে দাবি করা হয়। তিনি নিজেই বলেছেন ২০০৯ সালে তার বয়স ছিল ২২। কিন্তু পাসপোর্টে উল্লেখিত বয়স অনুযায়ী তখন তার বয়স ছিল ২৮।

সারা আলি খান

বলিউডের নতুন হার্টথ্রব সারা আলি খান। একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন তিনি ১৯৯৫ সালে জন্মেছেন। কিন্তু অনলাইন সার্চ করলেই দেখা যায় তার জন্মের সাল ১৯৯৩!

অন্যদিকে, সাইফ আলি খানের প্রথম স্ত্রী অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল ১৯৯১ সালে। তিনিই একবার বলেছিলেন তিনি প্রথম বাবা হয়েছিলেন বিয়ের দুবছর পর। সেই হিসেবেও সারার জন্মসাল ১৯৯৩-ই হয়। এই নায়িকা নিজের বয়স দুই বছর কমিয়েছেন।

দিশা পাটানি

২০১২ সালের একটি ভিডিওতে দিশা দাবি করেছিলেন তার জন্ম ১৯৯২ সালের ১৩ জুন। পরে ২০১৬ সালের একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন তার জন্মসাল ১৯৯৫, তারিখ ২৭ জুলাই। তাই এই নায়িকার বয়স নিয়ে বিতর্ক রয়েছে।

শোনা যায় সোনাক্ষি সিনহা, হিমা খান, পরিণীতি চোপড়ারাও নিজেদের বয়স লুকিয়েছেন।