এ বছরের ফিতরা জনপ্রতি কত টাকা জানাল ইসলামিক ফাউন্ডেশন

1648

এ বছর ফিতরার হার জনপ্রতি সর্বোচ্চ ২ হাজার ৬৪০ টাকা এবং সর্বনিম্ন ১১৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ফিতরা কত টাকা ২০২৩ – ফিতরার পরিমাণ কত ২০২৩ :২০২৩ সালে ফিতরার হার প্রতিজনে সর্বনিম্ন ১১৫ টাকা থেকে শুরু করে সর্ব্বোচ্চ ২,৬৪০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

এ হার নির্ধারণ করেছে জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটি। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির সভাপতি ও বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা মুফতি মোহাম্মদ রুহুল আমিন। উক্ত সভার মাধ্যমেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ফিতরা কত টাকা ২০২৩

গত বছর অর্থাৎ ২০২২ সালে জনপ্রতি ফিতরার সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ যথাক্রমে ৭৫ ও ২৩১০ টাকা ছিল। নিসাব পরিমাণ ধন সম্পদের মালিক হলে মুসলমান নারী-পুরুষ উভয়ের সাদাকাতুল ফিতর আদায় করা ওয়াজিব হয়।

ঈদের নামাজের পূর্বেই ফিতরা আদায় করতে হবে। প্রোবাংলার এ লেখাটি পড়লে আরো আপনি জানতে পারবেন- ফিতরা কেন দিবেন / ফিতরা কি / সদকাতুল ফিতরা কি?

এবারও সর্বসম্মতিক্রমে ইসলামী শরীয়াহ মতে গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক উন্নতমানের আটা, খেজুর, কিসমিস, পনির ও যব সহ যে কোন একটি দিয়ে ফিতরা দেয়া যাবে।

নিম্নে ছক আকারে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো। ছক পড়ে আপনি জানতে পারবেন- ফিতরা কত টাকা ২০২৩, Fitra koto taka, Fitra কত, ফিতরা দেওয়ার নিয়ম, ফিতরার রেট ২০২৩, ফিতরার পরিমাণ কত ২০২৩ ও ফিতরা দিতে হয় কিসের ভিত্তিতে।

নেসাব পরিমাণ সম্পদ কত?

নিসাবের পরিমাণ সম্পদ হচ্ছে, সাড়ে সাত ভরি সোনা অথবা সাড়ে বায়ান্ন ভরি রুপা বা সমমূল্যের নগদ অর্থ ও ব্যবসাপণ্য পরিমাণ সম্পত্তি। কোনো ব্যক্তি এই পরিমাণ সম্পদের মালিক হলে, তাঁর নিজের ও পরিবারের সবার পক্ষ হতে সদকাতুল ফিতরা আদায় করা ওয়াজিব।

ফিতরার পরিমাণ কত ২০২

পণ্যের নামপরিমাণফিতরার মূল্য
গম ও আটাআধা সা- ১ কেজি ৬৫০ গ্রাম১১৫ টাকা
যবএক সা- ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম৩৯৬ টাকা
কিসমিসএক সা- ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম১,৬৫০ টাকা
খেজুরএক সা- ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম১৯৮০ টাকা
পনিরএক সা- ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম২৬৪০ টাকা

বাংলাদেশের সকল স্থান, বিভাগ হতে সংগৃহীত আটা, গম, যব, খেজুর, কিসমিস ও পনিরের বর্তমান বাজার মূল্যের উপর ভিত্তি করে ফিতরার পরিমাণ কত তা নির্ধারণ করা হয়েছে।

মুসলমান ব্যক্তিগণ নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী উপরের ছক মোতাবেক যেকোন পণ্যের বাজার মূল্য দ্বারা ফিতর আদায় করতে পারবেন। উল্লেখ্য আবশ্যক যে, উপরোল্লিখিত পণ্যগুলোর স্থানীয় খুচরা মূল্যের পার্থক্য রয়েছে। সেই মতে স্থানীয় বাজার মূল্যে পরিশোধ করলেও ফিতরা আদায় হয়ে যাবে।

এক সা পরিমাণ কত কেজি?

মাঝারি দেহের অধিকারী মানুষের হাতের চার আজলা অথবা চার খাবলায় এক ‘সা’ হয়। যার অর্থ দাঁড়ায়- দুই হাতের কব্জি একত্র করে ০৪ খাবরিতে যতটুকু খাবার উঠে তাই এক ‘সা’। আরবিতে صاع ‘সা’ নির্ধারিত পরিমাপের একটি পাত্রকে বলা হয়, যার দ্বারা দানা জাতীয় শস্য মাপা হয়।

ভিন্ন ভিন্ন শস্য যদি এক-‘সা’ এক-‘সা’ মেপে কিলোগ্রামে ওজন করা হয়, তাহলে একেক শস্যের ক্ষেত্রে ওজন অন্য শস্যের ওজন থেকে কম/বেশী হবে।

এক স্বা‘ খাদ্যশস্য প্রদান করাই ফিতরার ক্ষেত্রে ওয়াজিব। যে স্বা‘ বা পাত্র নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ব্যবহার করেছেন সে স্বা অনুযায়ী। সাধারণত দুই হাতের পরিপূর্ণ চার মুষ্ঠি সমপরিমাণ খাদ্যশস্য এক স্বা‘কে পূর্ণ করে। মেট্রিক পদ্ধতিতে ওজন করলে এর পরিমাণ প্রায় ৩ (তিন) কিলোগ্রাম।