‘হরেক বোতলে মদ সেবন করা ছিল পরীমনির শখ’

388

চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় থরে থরে সাজানো ছিল দেশি-বিদেশি হরেক রকম ম’দে’র বোতল।

ছোট-বড় এসব ম’দে’র বোতল পরীমনির ড্রইং রুম, বেড রুম এমনকী বাথরুমেও রাখা ছিল।

বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে পরীমনির বাসায় অ’ভি’যা’নে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা হরেক রকম ম’দ জব্দ করেন। এ সময় তার কক্ষ থেকে ভ’য়’ঙ্ক’র মা’দ’ক এলএসডি ও আইস জব্দ করা হয়।

আটকের পর র‌্যাবের গোয়েন্দা বিভাগের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পরীমনি জানিয়েছেন, তিনি ম’দে আ’স’ক্ত ছিলেন। হরেক রকম বোতলে ‘ম’দ সেবন’ তার শখ ছিল।

এদিকে মা’দ’ক’স’হ নায়িকা পরীমনিকে আটকের পর র‌্যাব সদর দফতরে নেয়া হয়েছে। রাত আটটা ১০ মিনিটে তাকে র‌্যাবের সাদা রঙের কালো গ্লাসযুক্ত একটি গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় পরীমনি একটি চেকশার্ট পরা ছিলেন।

তার আগে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে রাজধানীর বনানীতে পরীমনির বিলাসবহুল বাড়িতে অ’ভি’যা’ন শুরু করে র‌্যাব।

প্রায় চার ঘণ্টার অ’ভি’যা’নে বিপুল পরিমাণ দেশি-বিদেশি ম’দ, ভয়ঙ্কর মা’দ’ক এলএসডি, আইস জব্দ করা হয়। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার গাড়িচালক ও দারোয়ানকে আটক করা হয়েছে।

পরীমনি দীর্ঘদিন ধরে আলোচনায় রয়েছেন। কিছুদিন আগে ঢাকার সাভারের বোটক্লাবে যৌ”’ন নি”র্যা”ত”নে”র শি’কা’র হয়েছেন অ’ভি’যো’গ করে আলোচনায় আসেন তিনি।

সে ঘটনায় কয়েকজন গ্রে’ফতারও হয়েছিলেন, তারা আবার জামিনও পেয়ে গেছেন। এর মধ্যেই আবার একাধিক ক্লাবে পরীমনির ভা’ঙ’চু’রে’র অ’ভি’যো’গ করেন সংশ্লিষ্টরা।

সম্প্রতি রাজধানী থেকে পিয়াসা ও মৌ নামে দুই মডেল গ্রে’ফতার হয়েছেন। তাদের বাসায় বিপুল মা’দ’ক ও ই’য়া’বা পাওয়া গেছে।