হজের সফরে জন্ম নিলো আরও এক শিশু ‘মুহাম্মাদ’

201

পবিত্র নগরী মক্কায় ৩৩ বছর বসয়ী এক আফগানি নারী জন্ম দিয়েছেন ফুটফুটে পুত্র সন্তান। এবারের হজের সফরের প্রথম শিশু ‘মাদিনা’র জন্মের পর আফগানি মায়ের কোল আলো করতে আসা সন্তানের নাম রাখা হয়েছে ‘মুহাম্মাদ’। খবর সৌদি প্রেস এজেন্সি।

গতকাল মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) পবিত্র নগরী মক্কা মুকাররমার একটি মা ও শিশু হাসপাতালে ভূমিষ্ট হয় এ শিশু। এবারের হজে সন্তান ভূমিষ্ঠের দ্বিতীয় ঘটনা এটি। মক্কায় ভূমিষ্ঠ হওয়া নবজাতক ও মা উভয়ে সুস্থ রয়েছেন।

প্রতি বছরই হজের সফরে অনেক নারীর সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। হজের সফরে এটিই কোনো আফগানি নারীর প্রথম সন্তান লাভ।

আফগানি এ নারী সন্তান ভূমিষ্ঠের পর প্রসূতি ও শিশু হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে উন্নত সেবা লাভের পর সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রশংসা করেছেন।

চলতি বছর ভারতীয় এক দম্পতির কোল আলো করে জন্ম নেয় প্রথম শিশু। তার নাম রাখা হয় ‘মাদিনা’।

মদিনার মসজিদে নববিতে এই প্রথম বাংলায় বয়ান….

বাংলা ভাষার আরেকটি জয়ের পলক উন্মোচন হয়েছে। গত ৩০ জুলাই ২০১৯ প্রথম বারের মতো হাজিদের উদ্দেশ্যে মসজিদে নববিতে অভিজ্ঞ আলেম-ওলামাগণ বাংলা বয়ান করেছেন। বাংলায় বয়ানের ব্যবস্থা করায় মক্কা-মদিনার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আলেম-ওলামা ও শ্রোতারা আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

সারাবিশ্ব থেকে মুমিন মুসলমান পবিত্র নগরী মক্কায় হজ উপলক্ষে আগমন করেন। হজসহ ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক বিষয়গুলো নিয়ে মক্কার মসজিদে হারাম ও মদিনার মসজিদে নববিতে নামাজের আগে ও পরে ধারাবাহিকভাবে চলে আলোচনা।

এ বছরই প্রথম বাংলা ভাষা-ভাষীদের জন্য বাংলায় বয়ানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাতে বাংলা ভাষা-ভাষীরা সুন্দরভাবে পবিত্র হজ ও ওমরা পালন করতে পারে। পাশাপাশি ইসলামের মৌলিক বিষয়গুলো সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা লাভ করতে পারে।

উল্লেখ্য যে, গত ৩০ জুলাই থেকে মসজিদে নববিতে প্রতিদিন নিয়মিত চলছে বাংলা বয়ান। যা হজ ও ওমরার জেয়ারতকারীদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এ বয়ানের ব্যবস্থা গ্রহণ করায় বাংলা ভাষা-ভাষী অংশগ্রহণকারী মানুষ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে সন্তোষ প্রকাশ করেন।