সাভারে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে স্বামীর পু রু ষা ঙ্গ কে.. টে.. দিলেন স্ত্রী

239

স্বামীর পু রু ষা ঙ্গ কে.. টে.. দিলেন স্ত্রী- সাভারে স্বামীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে লি.. ঙ্গ.. কর্তনের অভিযোগে স্ত্রী খাদিজা বেগমকে (২৭) আ ট ক করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শেখ তরিকুল ইসলাম।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সাভারের মালঞ্চ এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকা স্বামী বশির আহম্মেদ ও তার স্ত্রী খাদিজা বেগম এর মধ্যে মোবাইল ফোনের সিম হারানো নিয়ে কয়েক দিন ধরে ঝগড়া চলছিলো। তারই জেরে স্বামীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ঘুম পাড়িয়ে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে লি.. ঙ্গ কে.. টে দেন স্ত্রী খাদিজা।

পরে স্বামীর চিৎকারে আশ-পাশের লোকজন তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায়। অন্যদিকে ৪ বছরের মেয়েকে ফে লে রেখে স্ত্রী পালিয়ে যায়।

বশির বরিশাল জেলার কোতয়ালী থানার সিরাজুল ইসলামের ছেলে। তিনি সাভারের রাজ্জাক প্লাজায় মোবাইল সার্ভিসিং এর কাজ করতেন। স্ত্রী খাদিজাও বরিশালের মেয়ে।

এ ঘটনায় শনিবার ভুক্তভোগীর ভাই বাদী হয়ে সাভার থানায় মামলা করেছেন। মামলায় গৃহবধূকে আসামি করা হয়েছে। পরে ওই গৃহবধূকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাভার মডেল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শেখ তরিকুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে সাভারের ওয়াপদা রোডের মালঞ্চ আবাসিক এলাকার একটি ভাড়া বাসায় ঘুমন্ত স্বামীর পু রু ষা ঙ্গ কে.. টে দেন স্ত্রী।

গু রু তর অবস্থায় স্বামীকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন ওই গৃহবধূর স্বামী। সেই সঙ্গে অ ভি যু ক্ত গৃহবধূকে গ্রে.. ফ তার করা হয়েছে।

বাসা ভাড়া নিয়ে দে.. হ ব্যবসা….

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাসা ভাড়া নিয়ে দে.. হ ব্যবসা করতে গিয়ে খ দ্দে র সহ স্থানীয়দের কাছে হাতে নাতে ধ রা খেয়েছেন দুই নারী। শনিবার সকাল ১১টার দিকে সৈয়দপুর শহরের নয়াটোলার এলাকার একটি ভাড়াবাসা থেকে তাদের আ ট ক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার দে.. হ ব্যবসায় জড়িত নারী ও তার খ দ্দে রকে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং যার বাসায় এই অ সামাজিক কর্যক্রম পরিচালিত হতো সেই ভাড়াটিয়া নারীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, সৈয়দপুর শহরের নয়াটোলা মহল্লার ওই বাড়িটি ভাড়া নেন এক নারী। তিনি সেখানে অন্য নারীদের দিয়ে দে.. হ ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। বিষয়টি বাড়ির মালিক কে জানানো হলেও তিনি কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় এলাকাবাসী তাদের ওপর নজরদারি করতে থাকে।

শনিবার সকালে খ দ্দে র সহ এক নারী ও ভাড়াটিয়াকে হাতে নাতে আটক করে পুলিশে দেয় এলাকাবাসী। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের কা রা দ ণ্ড ও অ র্থ দ ণ্ড দেন।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দে.. হ ব্যবসায় জড়িত ওই নারী ও তার খ দ্দে র কে জেলা কা রা গা রে পাঠানো হয়েছে।