শীতে রোহিঙ্গাদের জন্য যে উপহার পাঠাল তুরস্ক !

100

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য শীতের উপহার পাঠিয়েছে তুরস্ক।

রোববার আঙ্কারার রাষ্ট্রীয় সাহায্য সংস্থা জানিয়েছে, বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবস্থান করা ৫ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ সম্পন্ন হয়েছে।

তুর্কি সহযোগিতা ও সমন্বয় সংস্থা (টিআইকিএ) এর বাংলাদেশ সমন্বয়কারী ইসমাইল গুন্ডোগদু আনাদোলু এজেন্সিকে বলেন, রোহিঙ্গা মুসলিমদের শীতের উপহারের অংশ হিসেবে আমারা পাঁচ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছি।

আমরা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের পুরো শীত মৌসুমে আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখব। বাংলাদেশে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে শীতের তীব্র আক্রমণ হবে।

স্থানীয় ও রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, শীত মৌসুমে বাংলাদেশের দক্ষিণপূর্ব এলাকায় থাকা বেশি রোহিঙ্গাদের ওপর প্রভাব পরতে পারে।

ইসমাইল গুন্ডোগদু আরও বলেছেন, ২০১৭ সালের আগস্ট মাস থেকে বড় আকারে রোহিঙ্গা সংকট শুরু হয়েছে। টিআইকেএ এসব রাষ্ট্রহীন ব্যক্তিদের সহযোগিতার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

এছাড়া টিআইকেএ-এর পক্ষ থেকে পাঁচ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারকে ৫ দিন ব্যাপী খাদ্য সহযোগিতাও করেছে।

মুসলিম রাষ্ট্র বলেই কি পাকিস্তানের সাথে আলোচনা করা যাবে না?, প্রশ্ন মেহবুবা মুফতির

চীন লাদাখে ঢুকে ভারতীয় ভূখণ্ড দখলের পথে হাঁটলেও তাদের সাথে আলোচনা চলতে পারে। অথচ পাকিস্তানের সাথে কোনো কথোপকথনেই রাজি নয় কেন্দ্র। মুসলিম দেশ বলেই কি এই অনাগ্রহ? রোববার কেন্দ্রের উদ্দেশে এমনই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন জম্মু ও কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি।

শনিবার জম্মু-কাশ্মিরে ছিল জেলা উন্নয়ন পরিষদের নির্বাচন। উপত্যকা থেকে ৩৭০ ধারা বিলুপ্তির পর প্রথম ভোট মিটেছে নির্বিঘ্নেই। রোববার এক সাংবাদিক সম্মেলনে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে মেহবুবা প্রশ্ন তোলেন ‘ওরা বলে, মুসলিমরা পাকিস্তান‌ি, শিখরা খালিস্তানি আর সমাজবাদীরা আরবান নকশাল।

তাহলে ভারতীয় কারা? কেবল বিজেপি?’ আ’ক্র’ম’ণা’ত্ম’ক মেজাজে তার আরো বক্তব্য, ‘সারা ভারতেই বি’রো’ধী’দে’র অ’ব’দ’ম’ন করে রাখা হয়েছে। ইডির মতো প্রতিষ্ঠানগুলি ওদের টার্গেট করে রেখেছে। আমাদের প্রার্থী, সদস্যদের কোনো নি’রা’প’ত্তা’ই নেই।’

শুক্রবারই পিডিপি নেত্রী অভিযোগ করেছিলেন, তাকে বেআইনিভাবে আটক করেছে পুলিশ। সে প্রসঙ্গেও এদিন মুখ খোলেন তিনি। তার কথায়, ‘আমাকে আটক করা প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশন যা বলেছে, তা শুনে আমি হতাশ।

যেদিন থেকে আমরা জানিয়েছি জেলা উন্নয়ন পরিষদের নির্বাচনে লড়ার কথা, তখন থেকেই আমাদের দলীয় সদস্যদের উপরে অ”ত্যা”চা”র বেড়ে গিয়েছে।’ এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে ৩৭০ ধারার বিলোপ নিয়ে কেন্দ্রের উদ্দেশে তার প্রশ্ন, ‘যদি ৩৭০ ধারার বিলোপই সমাধান হত, তাহলে কেন এখনও কাশ্মিরে সেনা মোতায়েন রয়েছে?’

গত বছরের আগস্টে জম্মু ও কাশ্মির থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল করে সেটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সেই সময়ই মেহবুবা মুফতি-সহ কাশ্মিরের প্রথম সারির রাজনৈতিক নেতাদের গৃ”হ”ব”ন্দি করে রাখা হয়েছিল। এক বছরেরও বেশি সময় গৃ”হ”ব”ন্দি থাকার পর মাসখানেক আগে মুক্তি পেয়েছেন পিডিপি নেত্রী।