ভেঙ্গে গেল পাখি ড্রেসের নায়িকা সেই পাখির সংসার

1780

ভারতের স্টার জলসার ‘বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন মধুমিতা সরকার। তার চরিত্র পাখি সবার মন জয় করে নেয়। ভারত ছাড়িয়ে বাংলাদেশেও তার জনপ্রিয়তা আছড়ে পড়ে জলের মতোই।

রাতারাতি তিনি এখানেও পাখি হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। তার নামে বাজারে আসতে থাকে পাখি ড্রেস, পাকি মেকআপ প্রসাধনীসহ আরও অনেক কিছু।

সেই সব পাখি ড্রেস ও সামগ্রী কিনতে না দেয়ায় অনেক স্বামী স্ত্রীই ঝগড়া বিবাদে জড়িয়েছেন। এমনকি পাখি জামা না পেয়ে স্বামীর সাথে রাগ করে বাপের বাড়ি চলে গেছেন স্ত্রী এমন খবরও এসেছে।

এবার সেই পাখি নিজেই ভাঙনের শিকার। ডিভোর্স হয়ে গেল তার। স্বামী সৌরভ চক্রবর্তীর সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে ছাড়াছাড়ির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

২০১১ সালে ‘সবিনয় নিবেদন’ সিরিয়ালে কাজ করতে গিয়ে সৌরভের সাথে পরিচয় মধুমিতার। তার ছয় মাস পর শুরু হয় মন দেওয়া নেওয়া। এরপর প্রেম ও বিয়ে। ২০১৫ সালের ২৬ জুলাই সৌরভ চক্রবর্তীকে বিয়ে করেন মধুমিতা।

এতদিন ভালোই ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই তাল কেটে গেছে তাদের দাম্পত্য জীবনের। কেউই আর কারো কাছে শান্তি ও প্রেম খুঁজে পাচ্ছেন না। তাই আলোচনায় বসেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তারা চান না এসব নিয়ে কাঁদা ছোড়াছুড়ি হোক।

এরই মধ্যে শুরু হয়েছে বিবাহবিচ্ছেদের আইনি প্রক্রিয়া।

এদিকে মধুমিতা এখন ওয়েব সিরিজ নিয়ে ব্যস্ত। অয়ন চক্রবর্তী পরিচালিত এর নাম ‘জাজমেন্ট ডে’। মধুমিতা এ মুহূর্তে ওয়েব সিরিজটির শুটিং করছেন দার্জিলিংয়ে। বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে তার কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

সিনেমায় রানু মণ্ডল হচ্ছেন কে ?

কলকাতার রানাঘাটের স্টেশন থেকে মুম্বাইয়ের রেকর্ডিং স্টুডিওতে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ার বদৌলতে রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে গেছেন। ভাইরাল হয় তার গান। অথচ কয়েক দিন আগেই দুবেলা ঠিক মতো খাবার জুটতো না তার।

এতক্ষণ যার কথা বলা হচ্ছে তিনি হচ্ছেন বর্তমান সময়ের একটি আলোচিত নাম রানু মণ্ডল। পথের ভিখারিনী থেকে তারকা বনে গেছেন তিনি।

ভারতের রানাঘাটের ভাঙা বাড়িতে থাকতেন একা। স্টেশনে গান গাইতেন, লোকে তার গান শুনে ভালোবেসে যা দিত তা দিয়েই কোনো মতে বেঁচে ছিলেন তিনি। ছিল না পরার কাপড়ও। মেয়েরা তাকে কেউই সেভাবে দেখত না। মাঝে মধ্যে ৫০০ টাকা পাঠাতেন তার মেয়ে। কিন্তু আজ সেই রানুই কি-না কিনছেন মুম্বাইতে ফ্ল্যাট। রোজ চড়ছেন বিমানে। এখন তো সুসময় রানু মণ্ডলের। সৃষ্টিকর্তা তাকে উজাড় করে দিচ্ছেন।

এবার সেই রানু মণ্ডলকে নিয়ে তৈরি হচ্ছে বাংলা সিনেমা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজএইটিন জানিয়েছে, পরিচালক হৃষিকেশ মণ্ডল তাকে নিয়ে ছবি করছেন।

তার জীবনের গল্পের ওপর তৈরি হচ্ছে এই ছবি। আর এই ছবিতে রানুর চরিত্রে অভিনয়ের জন্য বলা হয়েছে অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তীকে। কিন্তু সুদীপ্তা এখনও ছবির জন্য ‘হ্যাঁ’ বলেননি। তবে তিনি ‘না’ও বলেননি। গল্প দেখে তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমটি।

এর আগে হৃষিকেশ ‘অচেনা বন্ধুত্ব’, ‘কুসুমিতার গপ্পো’ নামে দুটি ছবি করেছেন। রানুর ছবিতে সঙ্গীত পরিচালনার কাজ করতে পারেন ক্যাকটাসের সিধু। তবে সবটাই আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে। এখনও কোনো কিছুই চূড়ান্ত হয়নি। তবে রানুকে নিয়ে ছবিটা হচ্ছে।