বিমানে যান্ত্রিক গোলযোগ, অল্পের জন্য রক্ষা টাইগারদের !

62

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে বাংলাদেশ সময় বেলা ১২টার মধ্যে রাজধানীর হযরত শাহজালাল (র) বিমানবন্দরে অবতরণ করতেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। কিন্তু বিমানে যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে ফ্লাইট ছাড়তে দেরি হয়েছে প্রায় তিন ঘণ্টার মতো সময়।

যথাসময়ে বিমান আকাশে উড়াল দিলে হয়তো বড়সড় দু র্ঘ ট না র মুখেই পড়তে হতো টাইগারদের। কেননা তামিম-মুশফিকদের বহনকারী শ্রীলঙ্কা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ইউএল ১৮৯-এ যাত্রা শুরুর খানিক আগেই দেখা দেয় যান্ত্রিক গোলযোগ। সে অবস্থায় বিমান আকাশে উড়লে বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত বলেই জানিয়েছেন বিমানের পাইলট।

আজ (বৃহস্পতিবার) শ্রীলঙ্কার স্থানীয় সময় সকাল ৭.৪৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় সকাল ৮.১৫) দেশের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়ার কথা ছিলো বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের। একই বিমানে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা ছাড়াও পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগণও ফেরার জন্য তৈরি ছিলেন।

কিন্তু নির্ধারিত সময়েও বিমান না ছাড়লে চিন্তার ছাপ দেখা দেয় সবার মাঝে। মিনিট পনেরো বাদে পাইলট জানান এ যাত্রার বিমানের বাম উইংয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে। যে কারণে নির্ধারিত সময়ে উড়াল দেয়া সম্ভব হয়নি।

তাই বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের জন্য নতুন একটি ফ্লাইট দেয়া হয়। যেটি ছাড়ার কথা ছিলো বাংলাদেশ সময় সকাল ১০.১৫ মিনিটে। তবে সেটিও যথাসময়ে ছাড়া যায়নি। শেষতক বাংলাদেশ সময় সকাল ১০.৫০ মিনিটে দেশের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন টাইগাররা।

হোয়াইটওয়াশের ধাক্কা লাগল টাইগারদের র‍্যাংকিংয়ে….

সিরিজ শুরুর আগে র‍্যাংকিংয়ে নিজেদের অবস্থান আরও শক্তপোক্ত করার সুযোগ ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য। তবে শঙ্কা ছিলো উল্টোটাও। নেতিবাচক ফলের মাশুল হিসেবে খোয়াতে হতো রেটিং পয়েন্ট। হয়েছেও ঠিক তাই।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের ফল সবারই জানা। ঘরের মাঠে প্রায় ৪৪ মাস পর ওয়ানডে সিরিজ জিতে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করেছে স্বাগতিকরা। শ্রীলঙ্কার মাটিতে প্রায় ১২ বছর পর সিরিজ হার এটি টাইগারদের।

এ সিরিজে কোনো ম্যাচ না জেতায় র‍্যাংকিংয়ে নিজেদের অবস্থানে কোনো হেরফের হয়নি বাংলাদেশের। তবে রেটিং পয়েন্টের ব্যবধানে কমে এসেছে অনেকটাই। নিজেদের সপ্তম অবস্থান ধরে রাখলেও, মূল্যবান ৪টি রেটিং পয়েন্ট হারিয়েছে বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পরেও বাংলাদেশ দলের রেটিং পয়েন্ট ছিলো ৯০, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে জিতলে রেটিং বেড়ে হতে পারতো ৯৩। কিন্তু উল্টো ০-৩ ব্যবধানে হেরে যাওয়ায় খোয়াতে হয়েছে ৪ রেটিং পয়েন্ট।

এদিকে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করে ৩ রেটিং পয়েন্ট পেয়েছে শ্রীলঙ্কা, ৮২ রেটিং নিয়ে অষ্টম অবস্থানে রয়েছে। সিরিজ শুরুর আগে বাংলাদেশের সঙ্গে ব্যবধান ১১ রেটিংয়ের থাকলেও, সেটি কমে এখন হয়েছে মাত্র ৪।