প্রবাসীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায় সরকার

75

প্রবাসীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বপ্ন পুরণে যারা বিদেশে পাড়ি দিচ্ছে সেই প্রবাসী শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চায় সরকার। এ সময় তিনি বলেন, বিদেশ যেতে কেউ যেন দালালের খপ্পরে না পড়ে সেদিকে বিশেষ নজর দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিদেশে পাঠানোর আগে শ্রমিকদের যথাযথ প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। আজ (২৫ আগস্ট) রবিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় আয়োজিত অভিবাসন বিষয়ক স্টিয়ারিং কমিটির প্রথম সভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেক দেশে আমাদের মেয়েরা কাজ করতে যায়, বা যাদেরকে কাজ করতে পাঠাচ্ছে। তারা কোনো ধরনের কাজের জন্য উপযুক্ত বা সে কী ধরনের জন্য করতে পারে। ওই নারী শ্রমিক কোনো ধরনের কাজ করবে, তার জন্য ট্রেনিং দরকার সেটাও নেয় না।

এর ফলে, কাজ না জানার কারণে সে নি র্যা ত নে র শিকার হতে হয়। তিনি আরও বলেন, আমরা শুধু এখন লেবার পাঠাবো না। দক্ষ জনশক্তিও আমাদের প্রেরণ করতে হবে। কিছু দালাল রয়েছে, যারা মানুষকে বড় স্বপ্ন দেখিয়ে তাদেরকে কাছ থেকে মোটা অংক নিয়ে এদের বাহিরে পাঠায়।

এই ধরনের অনিয়ম সারা বাংলাদেশে প্রচলিত রয়েছে। মানুষ যাতে ধোঁকাবাজি না করতে পারে সেদিকে আমাদের দৃষ্টি দেয়া দরকার। এছাড়াও শিগগিরই প্রবাসী নারী শ্রমিকদের জন্য হেল্প ডেস্ক করা হবে। প্রবাসীরা যাতে সহজে দেশে অর্থ পাঠাতে পারে সেজন্য সবাইকে সহযোগিতার আহবান জানান প্রধানমন্ত্রী। সুত্র-বি ডি ২৪ লাইভ।

সি’গারেট বিক্রির ২৬ লাখ টাকা ছি’নতাই

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর ফিল্মি স্টাইলে অ স্ত্রে র মুখে জিম্মি ও ফাঁ কা গু লি করে ব্রিটিশ-আমেরিকান ট্যোবাকোর মির্জাপুর পরিবেশক অগ্রণী ট্রেড কর্পোরেশনের ২৬ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা ছি ন তা ই করে নিয়ে গেছে ছিন তা ই কারীরা।

আজ রোববার সকাল ১০ টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল পুরাতন সড়কের পৌর সদরের মির্জাপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এই দু ধ র্ষ ছিন তাই য়ের ঘটনা ঘটে।

ছিন তা ইয়ের শিকার অগ্রণী ট্রেড কর্পোরেশনের সুপারভাইজার কাজী আসাদুল জানান, মির্জাপুর অগ্রণী ব্যাংকে সিগারেট বিক্রির ২৬ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা জমা রাখার জন্য তিনিসহ আরেক সুপারভাইজার মোহন সাহা ও একাউনট্যান্ট আবদুল মতিন দুটি মোটরসাইকেল নিয়ে বের হন।

বাইমহাটিস্থ অফিস থেকে বের হওয়ার দুই মিনিটের মাথায় পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পৌছলে আগে থেকে অবস্থান নেওয়া চারটি মোটরসাইকেলে করে প্রায় ৮-১০ জন হেলমেট পরিহিত আরোহী আমাদের গতিরোধ করে।

তাদের প্রত্যেকের হাতে আ গ্নে য়া স্ত্র ছিল ও একজন ১ রাউন্ড ফাঁকা গু লি ছুড়ে আমাদের কাছে থাকা টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। এদিকে ঘটনার পরপরই পুলিশ ব্যাপক তৎপরতা চালালেও দুপুরে রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত ছিন তা ইকৃত টাকা উদ্ধার বা কাউকে চিহ্নিত করতে পারেনি পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পৌর সদরের বিভিন্ন স্থানে বেশকিছু সিসি ক্যামেরা থাকলেও অধিকাংশ বিকল বা তদারকরিহীন। পৌর সদরের লাগানো মির্জাপুর থানার ৩৭টি সিসি ক্যামেরার মধ্যে ৩২টি বিকল। এছাড়াও উপজেলা পরিষদের সামনে লাগানো ক্যামেরা সম্মুখভাগ ব্যানারে ঢাকা পড়ায় সিসি ক্যামেরার সুবিধা নিতে পারছেনা পুলিশ।

মির্জাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মোশারফ হোসেন জানান, ছিন তা ইয়ের সংবাদ পাওয়ার পরপরই আমরা আমাদের তৎপরতা অব্যাহত রেখেছি, বিভিন্নস্থানে চেকপোস্ট বসানোসহ বেশ কয়েকটি জায়গার সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করার চেষ্টা করছি।