জেইন ইউনিভার্সিটি কর্তৃক উচ্চ শিক্ষা বিষয়ক আলোচনা সভা

189

গত ১১ জানুয়ারি ভারতের Jain University আয়োজিত Future of Learning Industry
4.0 শিরোনামে উচ্চ শিক্ষার সম্ভাবনা ও প্রসার বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ফেইথ ওভারসিজ লিমিটেডের সার্বিক তত্বাবধানে ঢাকার রেডিসন ব্লু-তে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হয়। বিশেষত জেইন ইউনিভার্সিটি তাদের ঐতিহ্য, শিক্ষার পরিবেশ, শিক্ষার্থীদের সুযোগ-সুবিধা, বৃত্তিসহ বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে।

উচ্চ শিক্ষার জেইন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের আদর্শবিদ্যাপীঠ হিসেবে চিহ্নিত করেন।
প্রধান আলোচক হিসেবে ভারতের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান জেইন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও জেইন ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান ডঃ চেনরাজ রায়চাঁদ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ইতিহাস, বর্তমান অবস্থা ও
ভবিষ্যত লক্ষ্য বিস্তারিত বর্ণনা করেন।

ঢাকাস্থ নেপালী দূতাবাসের দূত ডঃ বনশ্রীধর মিশ্র সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষা বিষয়ে ভারত, বাংলাদেশ ও নেপালের জনগণের অভিন্নপ্রায় বিষয় উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। প্রাইমেশিয়া ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ আব্দুল হান্নান চৌধুরী, ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ নাজমুল করিম চৌধুরী, ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আঞ্চলিক পরিচালক রানা হামিদুর রহমান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মোহাম্মদ আবুল খায়ের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বিশ্বায়নের সাথে সমন্বয়ে রেখে ভবিষ্যৎ শিক্ষা পদ্ধতি ও কর্মপন্থা বিষয়ে আলেঅচনা করেন। বাংলাদেশের শিক্ষার ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সম্ভাবনার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মানদন্ডে ভারতীয় শিক্ষার ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেন। একই সঙ্গে শিক্ষার্থীদের করণীয় সম্পর্কে দিকনির্দেশনা দেন।

আন্তর্জাতিক উচ্চ শিক্ষা বিষয়ে দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞ প্রতিষ্ঠান ফেইথ ওভারসিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের দেশের বাইরে উচ্চ শিক্ষা বিষয়ে বিশদ আলোচনা করেন। তার প্রতিষ্ঠান কিভাবে শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা বিষয়ে সহায়তা করে থাকে তা বর্ণনা করে উপযুক্ত বিষয় নির্বাচন, ভর্তির যথাযথ প্রক্রিয়া সম্পাদন, ভিসা প্রক্রিয়াসহ বিদেশে শিক্ষাগ্রহণকালীন অবস্থার যথাযথ আলোচনা করেন।