চালক ৩ কি.মি. যাওয়ার পর বুঝলেন ইঞ্জিনের পেছনে বগি নেই

247

চালক ৩ কি.মি. যাওয়ার পর বুঝলেন- প্রায় ৩ কিলোমিটার যাওয়ার পর চালক বুঝতে পারেন, ইঞ্জিনের পেছনে কোনো বগি নেই। পরে আবার ইঞ্জিনটি ফিরিয়ে এনে বগির সঙ্গে সংযুক্ত করা হয়। তবে এ ঘটনায় শেষ পর্যন্ত কোনো দু র্ঘ ট না ছাড়াই রক্ষা পান যাত্রীরা।

আজ (৪ জুলাই) রোববার সকালে ঢাকা থেকে পঞ্চগড়গামী ‌‌পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা যায়, চার শতাধিক যাত্রী নিয়ে পার্বতীপুর রেলস্টেশন থেকে ছেড়ে যায় ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি। ১০ মিনিট না চলতেই থেমে যায় ১২টি বগি, তবে থামেনি ট্রেনের ইঞ্জিন।

রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, গতকাল শনিবার রাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে পার্বতীপুর রেলস্টেশন থেকে পঞ্চগড়ের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। ১০ মিনিট পর ৮টা ৫০ মিনিটে ইষমারী নবিপুর স্কুলসংলগ্ন রেল পিলার অতিক্রম করার সময় ট্রেন থেকে ইঞ্জিনটি হঠাৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

আলাদা হয়ে যাওয়া ইঞ্জিনটি প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে চিরিরবন্দর স্টেশনে গিয়ে থামে। পরে ইঞ্জিনটিকে ফিরিয়ে এনে বগির সঙ্গে জুড়ে দিয়ে ৯টা ১৫ মিনিটে আবার ট্রেনটি পঞ্চগড়ের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

ইঞ্জিনের সহকারী চালক আবু তারেক গণমাধ্যমকে বলেন, চিরিরবন্দর স্টেশনের তিন কিলোমিটার দূরে ট্রেন থেকে ইঞ্জিন বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় গাড়ির গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় প্রায় ৭০ কিলোমিটার।

এ বিষয়ে রেলওয়ের লালমনিরহাট বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) মো. শফিকুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‌এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাত দিনের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

সুত্র-বি ডি ২৪ লাইভ।

প্রবাসী স্বামীর মিথ্যাচার সইতে না পেরে কলেজ ছাত্রীর ভ য়া ন ক কাণ্ড!

নোয়াখালীর সুবর্ণচর থেকে এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লা শ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ রবিবার বিকেল উপজেলার চরবাটা ইউনিয়নের পশ্চিম চরবাটা গ্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নি হ ত কলেজ ছাত্রীর নাম জয়শ্রী রায় (২০)। তিনি পশ্চিম চরবাটা গ্রামের মৃ ত দুর্লভ বিহারির মেয়ে এবং সৈকত সরকারি কলেজের স্নাতক (সম্মান) বিভাগের ছাত্রী ছিলেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত বছর ফেনীর দাগনভূঁইয়ার কমল দাসের সঙ্গে জয়শ্রীর বিয়ে হয়। বিয়ের ২৭ দিন পর কমল দক্ষিণ আফ্রিকায় চলে যায়। সেখানে যাওয়ার পর থেকে তার সঙ্গে কমলের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। এর মধ্যে জয়শ্রী জানতে পারেন কমলের আরও একটা বউ আছে।

ঘটনাটি মোবাইলে জানানোর পর কমল বিষয়টি নিয়ে মিথ্যাচার করেন এবং জয়শ্রীর সঙ্গে খারাপ আচরণ করে আসছিলেন। এর জের ধরে তিনি আত্ম হ ত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে জানান জয়শ্রী মা সীমান্ত রায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহেদ উদ্দিন জানান, জয়শ্রীর লা শ উদ্ধার করে ম য় না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের ম র্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।