কেউ আমাকে দলে নিলে খেলতে রাজি আছি: আশরাফুল

278

চট্টগ্রাম ভাইকিংসে খেলা এ ব্যাটসম্যান জায়গা পাননি বঙ্গবন্ধু বিপিএলে। খেলোয়াড় ড্রাফটে তাকে নেয়নি কোনো দল। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে বিপিএলের গত আসরে মাঠে নামেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

তবে প্লেয়ার ড্রাফটে অবিক্রীত থাকলেও কোনো দল তাঁকে দলভুক্ত করলে খেলতে প্রস্তুত আছেন বলে জানিয়েছেন আশরাফুল। অনেক দলই দেশি খেলোয়াড়ের কোটা পূরণ না করায় প্লেয়ার ড্রাফটে অবিক্রীত ক্রিকেটারদের দল পাওয়ার সুযোগ রয়েছে এখনো।

আশরাফুল বলেন, ‘কেউ আমাকে দলে নিলে খেলতে রাজি আছি। দল পাওয়া বা না পাওয়া তো আমার হাতে নেই। যেটা আমার হাতে সেটা করার চেষ্টা করব। সামনে বিসিএল হবে, প্রিমিয়ার লিগ হবে। এগুলোর জন্য প্রস্তুত হব।’

ফ্র্যাঞ্চাইজি প্রথা না থাকায় এবার বিপিএলে নেই চিটাগং ভাইকিংস, যে দলে সর্বশেষ বিপিএল খেলেছেন আশরাফুল। তবে বোর্ডের অধীনে থাকা কোনো দল তাকে দলভুক্ত করে কিনা, সেটাই এখন দেখার বিষয়।

তাঁর অধীনেই পাকিস্তান ক্রিকেটে সোনালী সময় ফিরে পাবে: ইমরান খান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে দেশের ক্রিকেট নিয়ে খুব একটা কথা বলেন না ইমরান। তবে এবার রাজনৈতিক দ্যিত্ব থেকে এক সপ্তাহের বিরতি নিয়ে তিনি নজর দিয়েছেন ক্রিকেটে।

দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের কাঠামোগত উন্নয়নের জন্য বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন ইমরান, একইসঙ্গে সাধুবাদ জানিয়েছে মিসবাহর নতুন সব সিদ্ধান্তকে।

যার মধ্যে রয়েছে সরফরাজকে দলের বাইরে রাখার সিদ্ধান্তটিও। তবে এ বিষয়ে আবার সরফরাজের পক্ষেও কথা বলেছেন ইমরান খান। সফরাজকে ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোযোগ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

এসময় মিসবাহর প্রতি নিজের আস্থার কথা জানিয়ে ইমরান খান বলেন, ‘মিসবাহকে এই দায়িত্ব দেয়াটা আমাদের গঠনগত সিদ্ধান্ত ছিলো। কারণ সে একজন নিরপেক্ষ ও সৎ ব্যক্তি।

যার কি না অনেক বেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে। আমি মনে করি তার অধীনেই টেস্ট ও ওয়ানডেতে পাকিস্তান সোনালী সময় ফিরে পাবে। খেলোয়াড়দের উজ্জীবিত করার দারুণ ক্ষমতা রয়েছে তার।’